জাতীয়

তিন ছেলে লটারিতে বালিকা বিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে !

কামরুজ্জামান মিন্টু,ষ্টাফ রিপোর্টারঃ ময়মনসিংহের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিদ্যাময়ী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে লটারি পদ্ধতিতে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে তিন ছেলে শিক্ষার্থী। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা।

করোনার কারণে এ বছর দেশের সরকারি বিদ্যালয়গুলোতে ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হচ্ছে লটারিতে। সোমবার (১১ জানুয়ারি) অনলাইনে ভর্তির ফলাফল প্রকাশ করা হয়। এতে ফলাফল শিটে ওই বিদ্যালয়ের তিন ছেলে শিক্ষার্থীর নাম চলে আসে।

ফলাফল শিট অনুযায়ী নামগুলো হচ্ছে- ফায়াজ জাহাঙ্গীর ইশমাম, মো. জোবায়েরুল হাসান খান ও ফারাবী ইসলাম। তারা সবাই চুতর্থ শ্রেণিতে মর্নিং শিফটে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে সাদিয়া জামান নামে একজন ফেসবুকে লিখেছেন, ‘১৭৭ জন বোনের তিনটা মাত্র ভাই। আজ লটারি ছিলো বলেই এভাবে ভাই বোন মিলেমিশে বিদ্যাময়ী গার্লস স্কুলে পড়ার সুযোগ পেলো।’

ছদরুল হাসান নামে আরেকজন ব্যক্তি লিখেছেন, ‘বিদ্যাময়ী স্কুলের লটারি রেজাল্ট সিটের ৩নং পৃষ্ঠাতে এই ছেলের নাম পাওয়া গেলো বুঝতে পারছি না, লটারি কতটা ফেয়ার হইছে।’

আলী ইউসুফ নামে ময়মনসিংহের এক সমাজসেবক ফেসবুকে লিখেছেন, এই বছর সরকারি স্কুলে লটারির মাধ্যমেই যেহেতু ভর্তির যোগ্যতা নির্ধারণ হয়েছে, তাই বিদ্যাময়ীতে চান্স পাওয়া ছাত্রদেরকেও বিদ্যাময়ীতেই ভর্তি করতে হবে।

এ বিষয়ে বিদ্যাময়ী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাছিমা আক্তার বলেন, ‘ভর্তির ফরমে ৫ টি বিদ্যালয়ের নাম থাকে। ওই পাঁচটি বিদ্যালয়ের যেকোনো বিদ্যালয় অভিভাবকরা সিলেক্ট করেন। এখানে হয়ত ভুলে অভিভাবকরা বিদ্যাময়ী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় সিলেক্ট করেছিল। যে কারণে লটারিতে বালিকা বিদ্যালয়ে তারা ভর্তির সুযোগ পেয়েছে।’

অভিভাবকদের ভুলের কারণে এমনটি হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ওই তিন ছেলে শিক্ষার্থীকে ভর্তি নেয়া হবে কি না সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এখানে আমাদের কিছু বলার নেই।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button