বাংলাদেশ

করোনার টিকা দান কর্মসূচি শুরু হচ্ছে বুধবার

করোনার টিকা প্রদানের উদ্বোধন করা হবে বুধবার। আর এ কার্যক্রমের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল। এদিকে, ভারত থেকে আনা বেক্সিমকোর টিকায় কোনো সমস্যা না থাকায় ছাড়পত্র দিয়েছে ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর। মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল ও ওষধ প্রশাসন অধিদপ্তর এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।

রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জামিল আহমেদ সাংবাদিকদের জানান, আমরা আমাদের প্রস্তুতির শেষ পর্যায়ে আছি। বুধবারের যে মূল অনুষ্ঠান হবে সেটির জন্য আমরা পুরোপুরি প্রস্তুত।

রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের একজন নার্সকে টিকা দেয়ার মাধ্যমে এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হবে। প্রথম দিন ২৪ জনকে টিকা দেয়া হবে যাদের মধ্যে বেশিরভাগই সম্মুখযোদ্ধা। পরদিন অর্থাৎ ২৮ জানুয়ারি ৫টি হাসপাতালের ১শ জনকে করে মোট ৫শ’ জনকে টিকা দেয়া হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে টিকা কার্যক্রম ও এর অ্যাপসের উদ্বোধন করবেন।

এদিকে, ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে বেক্সিমকোর আমদানি করা করোনার ভ্যাকসিন মানবদেহে প্রয়োগের জন্য উপযুক্ত হওয়ায় ছাড়পত্র দিয়েছে ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর।

ওষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মাহবুবুর রহমান সংবাদ সম্মেলনে বলেন, টিকার প্রতিটি লটের নমুনা পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পরীক্ষা করা হয়েছে। তারপর ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। বুধবার এ টিকা দিয়েই শুরু হবে করোনাভাইরাসের টিকাদান কর্মসূচি।

এর আগে, ২০ জানুয়ারি ভারতের দেয়া উপহারের ২০ লাখ ডোজ করোনার টিকা দেশে আসে। এছাড়া, ভারতের সেরাম থেকে কেনা অক্সফোর্ড অ্যাসট্রাজেনেকার থেকে তিন কোটি ডোজের প্রথম পর্যায়ের ৫০ লাখ ডোজ করোনার টিকা দেশে এসেছে। আগামী মাসের শুরুতে করোনার টিকার দ্বিতীয় চালান দেশে আসার কথা রয়েছে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button