সিনেমার শুটিং করতে হায়দরাবাদে লুবাবা, মিস করছেন দাদাকে। বলছেন ৯ বছরের নাতী!

বরেণ্য অভিনেতা আবদুল কাদের। ‘কোথাও কেউ নেই’ নাটকে বদি চরিত্রে অভিনয় করে কালজয়ী হয়ে আছেন। চলে গেছেন তিনি পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে, কিছুদিন আগেই। তার নাতনি সিমরিন লুবাবা। যাকে তিনি তৈরি করেছেন নিজের মনের মতো করে। নাতনিকে তিনি অভিনয়ের আঙ্গিনাতে দেখতে চেয়েছেন নিজের মতোই। তার প্রমাণ মাত্র ৯ বছর বয়সেই শিশুশিল্পী হিসেবে লুবাবার জনপ্রিয়তা। নানা রকম বিজ্ঞাপনে নিয়মিতই দেখা যায় লুবাবাকে। কাজ করছেন চলচ্চিত্রেও। ‘বিএএফ শাহীন ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে’ তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী লুবাবা। কেজিতে পড়ার সময় দাদার অনুপ্রেরণায় প্রথম শিশুশিল্পী হিসেবে বিজ্ঞাপনের মডেল হয়েছিলেন লুবাবা। সেই থেকে শিল্পী হিসেবে নিয়মিতই কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। প্রথমদিকে ক্যামেরার সামনে দাঁড়াতে খানিকটা ভয় লাগলেও দাদা আবদুল কাদেরের উৎসাহে সেই ভয় কেটে গেছে। ইতিমধ্যেই দেশের বিভিন্ন নামীদামী প্রায় ৫০টি ব্রান্ডের বিজ্ঞাপনচিত্রে কাজ করেছেন।পাশাপাশি দু’টি চলচ্চিত্রে কাজ শেষ করেছেন তিনি। আশরাফ শিশির পরিচালিত ‘৫৭০’ ও অমিতাভ রেজা চৌধুরী পরিচালিত ‘রিকশা গার্ল’ সিনেমাগুলো মুক্তির অপেক্ষায়।

লুবাবা এবার কাজ করছেন তৃতীয় সিনেমায়। নাম ‘নেত্রী দ্য লিডার’। বিগ-বাজেটের এই সিনেমায় অনন্ত জলিল, বর্ষাসহ ইরান ও ভারতের শিল্পীদের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে অভিনয় করছেন লুবাবাও। বর্তমানে এ ছবির শুটিং করতে রয়েছেন ভারতের হায়দারাবাদে। মিস করছেন দাদাকে। সেখান থেকে জাগো নিউজকে এ কথাই জানালেন তিনি। লুবাবা বলেন, ‘দাদা (আবদুল কাদের) বেঁচে থাকলে তাকে নিয়েই হয়তো আসা হতো। কিন্তু এবার সঙ্গে এসেছে মা। দাদা অভিনয়ের অনেক কিছু শিখিয়ে দিতেন। আমি তো চরিত্র বুঝি না। দাদা এগুলো বুঝতেন। তিনি আমাকে গল্প পড়ে শোনাতেন। কীভাবে অভিনয় করতে হবে বুঝিয়ে দিতেন। দাদা যেভাবে শেখাতেন, সেভাবে অভিনয় করতাম। সবাই খুব প্রশংসা করতো। আজ দাদাকে খুব মনে পড়ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘নেত্রী : দ্য লিডার’ সিনেমায় আমার চরিত্রটি বুঝিয়ে দিচ্ছেন মা (জাহিদা ইসলাম)।কীভাবে অভিনয় করতে হবে, শিখিয়ে দিচ্ছেন তিনি। সিনেমার টিমও অনেক হেল্প করছে। চেষ্টা করছি ভালো করার।’ বর্তমানে ভারতের হায়দরাবাদে চলছে ‘নেত্রী: দ্য লিডার’ সিনেমার শুটিং। ১৭ মার্চ থেকে শুরু হয়েছে লুবাবার অংশের শুটিং। এর আগে মা-বাবা, ভাই ও দাদিকে নিয়ে ১৬ মার্চ সকালে ঢাকা থেকে ভারতের হায়দরাবাদের উদ্দেশে যাত্রা করেন লুবাবা। এবারই প্রথম দলে নেই আবদুল কাদের। গেল বছরের ডিসেম্বর মাসে প্রয়াত হন তিনি। এদিকে ‘নেত্রী : দ্য লিডার’ ছবিটি তুরস্কের সঙ্গে যৌথ প্রযোজনায় নির্মাণ করেছেন অনন্ত জলিল। তার সঙ্গে যৌথভাবে এটি পরিচালনা করছেন দক্ষিণ ভারতীয় পরিচালক উপেন্দ্র মাধব। ছবির নাম ভূমিকায় অভিনয় করছেন চিত্রনায়িকা বর্ষা। এতে অনন্ত জলিলকে দেখা যাবে বর্ষার বডিগার্ড হিসাবে। আরও অভিনয় করছেন ভারতের প্রখ্যাত অভিনেতা কবির দুহান সিং, প্রদীপ রাওয়াত, তরুণ অরোরা প্রমুখ।