জঙ্গলে থাকা ‘মোগলি’ এবার শার্ট প্যান্ট পোরে পড়তে যাচ্ছে স্কুল এ ।

alain go to school

ঠিক যেন মনে হয় রূপোলি পর্দার সেই মোগলির কথা । জাকার্তার একুশ বছর -এর এলির গল্প ঠিক যেন সেলুলয়েডের মোগলির এ যেন বাস্তব রূপ। ফল মূল-ঘাস খাওয়া থেকে শুরু করে মানুষ দেখে জঙ্গলে পালিয়ে যাওয়া- সবকিছুই যেনো দেখা যেত এই এলির মধ্যে।

এলির মানুষের মত দেখতে হলেও, তাঁর জীবন ধারন ছিল প্রাণীদের মতোই। বাড়িতে রয়েছে এলির মা এবং বাবা। অনেক বার কাকুতি মিনতি করে ডাকলেও বাড়ি আসতো না এলি। বাড়িতে ভালো মন্দ কোন খাবার হলেও, সে বাড়িতে আসতোনা ।

কিছুই ছেলের মুখে তুলেও দিতে পারতেন না এলির মা। এলির জঙ্গলে থেকে এবং সেখানকার ঘাস-পাতা কিংবা কলা খেয়েই দিন কাটত । শুধু মা এবং বাবাকেই একমাত্র পছন্দ করত এলি। এছাড়া অন্য কোন মানুষ দেখলে ভয়ে এলির আবার জঙ্গলে পালিয়ে যেতো ।এলির মা জানিয়েছিলেন, এলির তাঁর একমাত্র জীবিত সন্তান । আগে অবশ্ব্য ৫ সন্তান জন্মের সময়ই মারা যায়। তবে এই ছোট থেকেই এলি একটি বিরল রোগে আক্রান্ত।

অন্য ৫ জন স্বাভাবিক মানুষের মত নয় তাঁর জীবন। বর্তমানে অনেক বদলে গিয়েছে সেই এলির জীবন। ইতিমধ্য স্কুলে ভর্তি হয়েছেন এলি। শার্ট প্যান্ট পরিহিত অবস্থায় পিঠে স্কুলের ব্যাগ নিয়ে অন্যান্য বাচ্চাদের সঙ্গে স্কুলে যেতে দেখা যায় এলিকে। সামাজিক মিডিয়ায় এই দৃশ্য ব্যাপকহারে ভাইরালও হয়েছে। সামাজিক মিডিয়ায় এলিকে বেশ শান্ত শিষ্ট অবস্থায় স্কুলের ইউনিফর্ম পরিহিতভাবে স্কুলে যেতে দেখা গেছে।

ছেলেকে এভাবে স্কুলে যেতে দেখা এলির বাবা এবং মাও অনেক খুশি।