২৯ তারিখে ভারতের বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনাল খলবে বাংলাদেশ , বাংলাদেশে দল বলছে এটা খুব সহজ ম্যাচ।

U-19 বিশ্বকাপে কঠিন পরীক্ষার সামনে পড়তে যাচ্ছে বাংলাদেশ। আগামী ২৯ জানুয়ারি কোয়ার্টার ফাইনালের লড়াইয়ে যুবদের প্রতিপক্ষ ভারতের যুবরা । U-19 বিশ্বকাপ শুরুর ঠিক আগে সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত এশিয়া কাপে এই ভারতের বিপক্ষে সেমিফাইনাল হেরে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গিয়েছিল বাংলাদেশ(অনূর্ধ্ব-১৯)। তবে এবারের বিশ্বকাপ মঞ্চে অবশ্য আত্মবিশ্বাসী রাকিবুলরা। আজ (বৃহস্পতিবার) দলের টপ অর্ডার ব্যাটার প্রান্তিক নওরোজ নাবিল সে কথাই জানিয়েছেন।

বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের তকমা সেঁটে ক্যারিবীয় দ্বীপে পা রেখেছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। সেখানে রাকিবুল হাসানদের শুরুটা হয়েছিল ইংল্যান্ডের কাছে বড় হার দিয়ে(অনূর্ধ্ব-১৯)। ‘এ’ গ্রুপে বাকি দুই ম্যাচ কানাডা ও আরব আমিরাতের বিপক্ষে জিতে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে বাংলাদেশ(অনূর্ধ্ব-১৯)। সেখানে তাদের প্রতিপক্ষ ভারত(অনূর্ধ্ব-১৯)।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় নাবিল বলেছেন, ‘২৯ জানুয়ারি ভারতের বিপক্ষে আমাদের কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচ(অনূর্ধ্ব-১৯)। ওই ম্যাচ লক্ষ্য করে আমাদের দলের পরিবেশ খুব ভালো আছে(অনূর্ধ্ব-১৯)। আমরা গ্রুপ পর্বের শেষ দুটি ম্যাচ খুব ভালো করে জিতেছি(অনূর্ধ্ব-১৯)। দলের আত্মবিশ্বাস এখন খুব ভালো আছে(অনূর্ধ্ব-১৯)। আমাদের এই মোমেন্টাইমটা ক্যারি অন করার ইচ্ছা আছে(অনূর্ধ্ব-১৯)।’

ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের কোয়ার্টার ফাইনাল হবে অ্যান্টিগা ও বারবুডায়(অনূর্ধ্ব-১৯)। দুই দিন আগে এই ভেন্যুতে চলে এসেছে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা(অনূর্ধ্ব-১৯)। একদিন বিশ্রামের পর বুধবার অনুশীলন করেছে পুরো দল(অনূর্ধ্ব-১৯)। আগামী দুই দিনের সময়টা ভালোভাবে কাজে লাগিয়ে ম্যাচের জন্য প্রস্তুত হতে মরিয়া রাকিবুলরা(অনূর্ধ্ব-১৯)। সে কথাই শুনিয়েছেন নাবিল, ‘এখানে আসার পর আমাদের একদিন ব্রেক ছিল(অনূর্ধ্ব-১৯)। টিম বন্ডিংয়ের জন্য আমরা সম্ভাব্য সবকিছু করছি(অনূর্ধ্ব-১৯)। এগুলো আমাদের অনেক বুস্টআপ করেছে(অনূর্ধ্ব-১৯)। আপাতত আমরা ট্রেনিং করছি ওই ম্যাচ ঘিরে(অনূর্ধ্ব-১৯)। আমাদের খুব ভালো লাগছে, সবাই দ্রুত মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে(অনূর্ধ্ব-১৯)। ইনশাআল্লাহ আমরা খুব ভালো কিছু করবো, আমাদের মূল ফোকাস এখন এই ম্যাচটার ওপর(অনূর্ধ্ব-১৯)।’

বয়সভিত্তিক ক্রিকেটে ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের সাফল্য সামান্যই(অনূর্ধ্ব-১৯)। ২০২০ বিশ্বকাপে ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়া ছাড়া আর কোনও ম্যাচেই তাদের হারাতে পারেনি বাংলাদেশ দল(অনূর্ধ্ব-১৯)। সর্বশেষ ৪ ম্যাচের মধ্যে তিনটিই হেরেছে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা(অনূর্ধ্ব-১৯)। নাবিল বিশ্বাস করেন, প্রসেস মেনে খেলতে পারলে সেমিফাইনালে যাওয়া সম্ভব(অনূর্ধ্ব-১৯)। কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচটিকে ‘সিম্পল’ একটি ম্যাচ ভেবেই মাঠে নামতে চায় যুব দল, ‘কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচটাকে জাস্ট একটা সিম্পল ম্যাচ হিসেবে নিয়ে এগোচ্ছি(অনূর্ধ্ব-১৯)। প্রসেসটা মেইনটেইন করতে পারলে দিনশেষে ফল আমাদের দিকে আসবে ইনশাআল্লাহ(অনূর্ধ্ব-১৯)।’

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় দুচিন্তা টপ অর্ডার(অনূর্ধ্ব-১৯)। বিশেষ করে বড় দলগুলোর বিপক্ষে বাংলাদেশের টপ অর্ডার আগের ম্যাচগুলোতেও জ্বলে উঠতে পারেনি(অনূর্ধ্ব-১৯)। এরই মধ্যে ১১টি সেঞ্চুরি দেখা টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের কোনও ব্যাটার তিন অঙ্কের দেখা পাননি(অনূর্ধ্ব-১৯)। এখন পর্যন্ত টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের হাফসেঞ্চুরি মোটে দুটি(অনূর্ধ্ব-১৯)। বলার অপেক্ষা রাখে না ভারতের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে টপ অর্ডার ব্যাটাররা মনখুলে খেলতে না পারলে কঠিন পরিস্থিতিতে পড়তে হবে দলকে!