ঢাকার কাছে প্রথমবারের মত হারার স্বাদ পেলো কুমিল্লা। যাদের কে কৃতিত্ব দিলেন মাহমুদউল্লাহ

 

কুমিল্লাকে প্রথম হারের স্বাদ উপহার দিল মিনিস্টার ঢাকা। বিপিএলের ১৫তম ম্যাচে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ঢাকার কাছে হেরেছে ৫০ রানের বড় ব্যবধানে।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে এদিন কুমিল্লার মুখোমুখি হওয়া ঢাকা শুরুতেই হারায় ওপেনার মোহাম্মদ শাহাজাদকে। মুস্তাফিজের শিকার হয়ে শাহাজাদ সাজঘরে ফেরত গেলেও দেখেশুনে খেলতে থাকেন তামিম ইকবাল। সময়ের সাথে সাথে ক্রিজে সেট হয়ে স্কোর বড় করতে থাকেন তিনি।

মাঝপথে ইমরানুজ্জামান ১৫ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরে গেলেও তামিম এগিয়ে যাচ্ছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে নিয়ে। ৩৫ বল মোকাবেলায় তামিমের ৪৬ রানের সাথে মাহমুদউল্লাহ খেলেন বিধ্বংসী ইনিংস। ৪১ বল মোকাবেলায় ৩টি চার ও ৪টি ছক্কার সাহায্যে মাহমুদউল্লাহ অপরাজিত থাকেন ৭০ রানে। যা তার বিপিএল ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ রানের ইনিংস। মাহমুদউল্লাহর ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৮৬ রানের বড় পুঁজি পায় ঢাকা।

বড় লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুতেই খেই হারায় কুমিল্লাও। লিটন দাস ও ফাফ ডু প্লেসি ব্যর্থ হলেও ইমরুল কায়েস ও মাহমুদুল হাসান জয় চেষ্টা চালিয়ে যান। তবে কায়েস ২৮ এবং জয় ৩০ বলে ৪৬ রানের ইনিংস খেলে সাজঘরে ফেরত গেলে আশার আলো নিভতে থাকে কুমিল্লার। ইনিংসের ১৫ বল বাকি থাকতেই কুমিল্লা অলআউট হয়ে যায় মাত্র ১৩১ রানে। ফলে তারা ম্যাচ হজেরেছে ৫০ রানের বড় ব্যবধানে।

এদিকে কুমিল্লার বিপক্ষে এমন জয় তুলে নেয়ার পর ঢাকার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ প্রশংসা করেছেন দলের ওপেনার তামিম ইকবালের। তার ভালো শুরুর কারণেই দল স্কোর বোড় করতে পেরেছে বলেও জানান মাহমুদউল্লাহ।

ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, ‘’আমি সবসময় দলের জন্যই খেলি। আজকে আমরা যেভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছি জয় প্রয়োজন ছিল আসলেই। তামিমের এই ইনিংস আমাদেরকে বড় সংগ্রহ পেতে সাহায্য করেছে। গত কয়েক ম্যাচে তামিম ও শাহাজাদ ভালো ব্যাটিং করেছে যা আমাদের বড় স্কোর পেতে সাহায্য করেছে। আজকের উইকেট ভালো ছিল। আশা করি আমাদের জয়ের এই ক্ষুধা অব্যাহত থাকবে।‘’