শিং মাছের গলায় তাবিজ বাঁধা, জনমনে কৌতুহল

নওগাঁ জেলার আত্রাই উপজেলার আত্রাইয়ে বিক্রিয় এর জন্য নিয়ে আসা শিং মাছের গলায় তাবিজ বাঁধা দেখে জনসাধারণের মাঝে কৌতুহলের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনাটি জানাজানি হলে এ মাছ দেখতে উৎসুক জনতা ভিড় করে। জানা যায়, বৃহস্পতিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে আত্রাই মাছ বাজারের এক আড়তে তাবিজ বাঁধা চারটি শিং মাছ পাওয়া যায়।

প্রতিদিন এই মাছ বাজারে এলাকার শত শত লোক মাছ নিয়ে আসেন বিক্রির জন্য। বিশেষ করে পুকুর মালিকরা, জেলেরা প্রতিদিন বিপুল পরিমাণ মাছ নিয়ে আসেন এ বাজারে। রোজকার মতো বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে বাজারের চঞ্চল অ্যান্ড আপেল মৎস্য আড়তে বিক্রির জন্য শিং মাছ নিয়ে আসেন বাঁকা গ্রামের আবু তালেব নামে এক কৃষক। তিনি আত্রাই-পতিসর সড়কের খাদ থেকে এসব শিং মাছ ধরেছিলেন বলে জানা গেছে। মাছগুলো বিক্রির জন্য আত্রাই মাছ বাজারে নিয়ে আসলে আড়ৎদারের চোখে পরে চারটি শিংমাছের গলায় তাবিজ বাঁধা। মুহূর্তের মধ্যে সংবাদ ছড়িয়ে পরলে জনসাধারণের মাঝে ব্যাপক কৌতুহলের সৃষ্টি হয় এবং উৎসুক জনতা মাছগুলো দেখার জন্য সেখানে ভিড় জমান।

স্থানীয় আত্রাই মদীনাতুল উলুম মাদরাসার সিনিয়র উস্তাদ বিশিষ্ট আলেম মাওলানা শাহে আলম বলেন, ‘শিং মাছের গলায় তাবিজ বেঁধে অনেক মানুষের ক্ষতি সাধন করা যায়। এছাড়াও অনেক অসাধ্য বস্তুকে অর্জনেও এ পদ্ধতি ব্যবহার করেন। তবে প্রতিপক্ষের ক্ষতি সাধনের জন্যই এ ব্যবস্থাটি সর্বাধিক কার্যকরী হয়।’

মাছ বাজারের আড়ৎদার এনামুল হক চঞ্চল বলেন, ‘মাছগুলো দেখার সঙ্গে সঙ্গে আমরা ওই মাছগুলো পৃথক করে রাখি। পরে স্থানীয় একজন আলেমকে ডেকে তার মাধ্যমে তাবিজ খুলে নিয়ে মাছগুলো নদীতে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।’