মঈন আলীর শ্বশুড়বাড়ি সিলেট এ তাই সিলেট এসে অনেক খুশি । সিলেটে কিছু ভাষাও শিখেছেন ।

প্রথমবার শ্বশুড়বাড়ি সিলেট এসে উচ্ছ্বসিত মঈন।’আমি কিছু সিলেটি ভাষা পারি। তবে আমি আরও শিখতে চাই।’। ২০১৬ সালে ইংল্যান্ড যখন বাংলাদেশ সফর করে তখন জানা যায় যে অলরাউন্ডার মঈন আলী বাংলাদেশের জামাই। তার স্ত্রীর পৈতৃক নিবাস বাংলাদেশের সিলেটে। বিপিএলে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে খেলতে এখন শ্বশুড়বাড়ির জায়গাতেই আছেন তিনি।প্রথমবার সিলেটে এসে উচ্ছ্বসিত মঈন

জন্ম ইংল্যান্ডে হলেও মঈন আলী পাকিস্তান বংশোদ্ভূত। বিয়ে করেছেন বাংলাদেশের সিলেটের মেয়ে ফিরোজা হোসেনকে। তিন দেশকেই নিজের বাড়ি হিসেবে দেখেন মঈন। রোববার ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে ম্যাচের কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের এ অলরাউন্ডার মুখোমুখি হন সাংবাদিকদের।

জাতীয় দলের হয়ে এবং বিপিএল খেলতে এর আগে বাংলাদেশ আসলেও সিলেটে আসা হয়নি তার। প্রথমবার এসে বেশ খুশি তিনি। তিনি বলেন, “বাংলাদেশ আমার বাড়ি, পাকিস্তান আমার বাড়ি, ইংল্যান্ডও আমার বাড়ি। আমি সিলেটে প্রথমবার। তারা আমাকে সব সময় আসতে বললেও আমার আসা হয় না। আমি এখানে এসে খুব খুশি।”

সিলেটের কিছু কিছু ভাষাও মঈন পারেন বলে জানান। আরো শিখতে চাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করে বলেন, “আমি কিছু সিলেটি ভাষা পারি। তবে আমি আরও শিখতে চাই। আমি আরো শিখতে চেষ্টা করব কারণ হোটেলে যারা আছে তারাও সিলেটি ভাষায় কথা বলে।”

মঈনের দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স আছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে। ছয় ম্যাচের মধ্যে চারটিতেই জিতেছে তারা। সোমবার দুপুর সাড়ে বারোটায় ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে মাঠে নামবে তারা। টুর্নামেন্টের প্রথম সাক্ষাতে সাকিব আল হাসানের দল ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে ৬৩ রানের বড় জয় পায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।