হঠাৎ ইসির যুগ্ম সচিব আবুল কাসেম হঠাৎ পদত্যাগ করেছেন।


নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয়ের যুগ্ম সচিব আবুল কাসেম হঠাৎ পদত্যাগ করেছেন। ইসি সচিবালয়ের গুঞ্জন উঠেছে, নতুন নির্বাচন কমিশনার হওয়ার প্রত্যাশায় তিনি পদত্যাগ করেছেন এমন গুঞ্জন ছড়িয়েছে। অবশ্য আবুল কাসেম ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে পদত্যাগ করেছেন। ইসি সচিবালয়ের নিয়মিত চাকরি অবসায়নের পর ২ বছরের জন্য চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ পাওয়া আবুল কাসেম ১ মাসের বেতনের টাকা ফেরত দিয়ে গত ২ ফেব্রুয়ারি পদত্যাগপত্র জমা দেন। পত্রটি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছে ইসি সচিবালয়।

ইসি সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন নির্বাচন ব্যবস্থাপনা-১ অনুবিভাগের দায়িত্বে ছিলেন আবুল কাসেম। কঠোর গোপনীয়তায় পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন তিনি। পদত্যাগী ওই কর্মকর্তা তার ঘনিষ্ঠজনদের জানিয়েছেন, কমিশনার নিয়োগ পাবেন–এমন আশ্বাস পেয়েই তিনি পদত্যাগ করেছেন। অবশ্য ২০২০ সালে সরকারি চাকরি থেকে অবসরে যাওয়ার সময় থেকেই তিনি ভবিষ্যতে ইসির কমিশনার হবেন–এমন গুঞ্জনও ইসি সচিবালয়ে ছিল।

জানা গেছে, আবুল কাসেম ১৯৯০ সালে ২৪ মার্চ জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা হিসাবে নির্বাচন কমিশনে যোগ দেন। ওই বছর নভেম্বর সহকারী সচিব হিসাবে ইসি সচিবালয়ে যোগ দেন। ক্রমান্বয়ে পদোন্নতি পেয়ে তিনি ইসির যুগ্ম সচিব হন। ২০২০ সালে তার চাকরির বয়স শেষ হলে সরকার তাকে দুই বছরের জন্য চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেয়। এদিকে আবুল কাসেমের কমিশনার হওয়ার গুঞ্জনে ইসির কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে অস্বস্তি শুরু হয়েছে।

বিশেষ করে তার সমপর্যায়ের কর্মকর্তাদের মধ্যে এক ধরনের হীনমন্যতা তৈরি হয়েছে। তবে সোমবার সকালে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের ওয়েব সাইটে কর্মকর্তাদের নামের তালিকায় আবুল কাসেমের নামটিও দেখা গেছে। তিনি ২০১৯ সালে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন উপনির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ছিলেন। ২০২০ সালে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের সাধারণ নির্বাচনেও রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন করেন।