কুমিল্লায় ২০ বছর পর যাব’জ্জীবন সা’জাপ্রাপ্ত আ’সামি হাবিবুর রহমান গ্রে’ফতার


কুমিল্লার হোমনা উপজেলার আসাদপুর ইউনিয়নের মুন্সিকান্দি গ্রামের স্বপন (২০) হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি হাবিবুর রহমান (৪৫)কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তিনি মাটি কাটা এক শ্রমিককে হত্যার পর ২০ বছর পালিয়ে ছিলেন।

এরই মধ্যে তাকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দেন আদালত। অবশেষে পুলিশের তিন মাসের চেষ্টায় ২০ বছর পালিয়ে থাকা সেই সাজাপ্রাপ্ত আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হোমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কায়েস আকন্দ। মঙ্গলবার রাতে কুমিল্লা নগরীর রেসকোর্স এলাকার একটি হোটেল থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত হাবিবুর রহমান ওরফে রাকিব উল হাসান (৪৫) উপজেলার আসাদপুর ইউনিয়নের দড়িকান্দি গ্রামের মৃত আবদুর রশিদের ছেলে।


ওসি আবুল কায়েস আকন্দ জানান, ২০০২ সালে হাবিবুর রহমান তার নিজ গ্রামের মাটি কাটা শ্রমিক স্বপনকে হত্যা করে পালিয়ে যায়। এরপর থেকে তার কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। এরই মধ্যে ২০০৬ সালে আদালতে খুনের বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় তাকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। কিন্তু কোনোভাবেই তাকে গ্রেপ্তার করা যাচ্ছিল না।

তিনি আরো জানান, জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশনায় গত তিন মাস ধরে তাকে ধরতে আমরা বিভিন্ন স্থানে আমরা সোর্স নিয়োগ করি। তিন মাসের চেষ্টার পর সর্বশেষ জানতে পারি হাবিবুর রহমান কুমিল্লা নগরীর রেসকোর্স এলাকার রেড রুফ ইন হোটেলে অবস্থান করছে। পরে বিকেল ৪টার দিকে সেখানে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করি। বুধবার সকালে তাকে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হবে।