ঘাসের নিচ থেকে ঝাকে ঝাকে মাগুর মাছ বের হচ্ছে, তুমুল ভিডিও সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল


বৃ’ষ্টি একধরনের তরল, যা আকাশ থেকে মাধ্যাকর্ষণের টানে ভূপৃষ্ঠের দিকে পড়ে। পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে জলীয় বাষ্প ঘনীভূ’ত হয়ে মেঘের সৃ’ষ্টি করে। যেসব অঞ্চলে বৃ’ষ্টিপাত বেশি কিংবা নিচু জমি, সেসব অঞ্চলে ধান ভালো হয়। পাহাড় কিংবা পাহাড়ের ঢালেও এর চাষ হয়ে থাকে।

এই ফোঁটাগু’লি যথে’ষ্ট পরিমাণে ভারি হলে তা পৃথিবীর বুকে ঝরে পড়ে – একেই বলে বৃ’ষ্টি।বিশ্বের অধিকাংশ অঞ্চলে বৃ’ষ্টি সুপেয় জলের বড় উৎস। বিচিত্র জৈবব্যবস্থাকে বাঁচিয়ে রাখতে ধান চাষ অত্যন্ত শ্রমনির্ভর। অনেক শ্রমিক প্রয়োজন হয়, এ কারণে যেসব এলাকায় শ্রমিক খরচ কম সেসকল অঞ্চলে ধান চাষ করা সহজ। এর মাতৃ উদ্ভিদের বাসস্থান এশিয়া এবং আফ্রিকা। জলবিদ্যুৎ প্রকল্পগু’লি সচল রাখতে ও কৃষি সেচব্যবস্থা সচল রাখতে বৃ’ষ্টির প্রয়োজন হয়। যদিও সকল প্রকার বৃ’ষ্টি ভূপৃষ্ঠ অবধি পৌঁছায় না। শুকনো বাতাসের মধ্য দিয়ে পড়ার সময় কিছু বৃ’ষ্টির বিন্দু শুকিয়ে যায়।

ভারগা নামে পরিচিত এই বৈশি’ষ্ট্যটি শুষ্ক মর’ুভূমি অঞ্চলে দেখা যায়।ধান চাষ করতে হলে প্রথমে বীজতলা তৈরী করতে হয়, সেখানে বীজ ছিটিয়ে রেখে কয়েকদিন সেচ দিতে হয় তারপর ছোট চারা তৈরী হলে সেগু’লোকে তুলে প্রধান জমিতে রোপন করা হয়।

তাছাড়া সরাসরি বীজ প্রধান জমিতে ছিটিয়েও চাষ করা হয়। ধান চাষে প্রচুর পানির দরকার হয়। গাছের গোড়ায় অনেকদিন পর্যন্ত পানি জমিয়ে রাখা হয়।

সম্প্রতি সোস্যাল মিডিয়ায় এমন একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটি সোস্যাল মিডিয়ায় আসার সাথে সাথে ব্যাপক সাড়া পেয়েছে।