প্রেমের ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর সংঘ’র্ষ, নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশের গু’লি


নোয়াখালীর সেনবাগে এক যুবকরে সঙ্গে এক কিশোরীর প্রেমের সম্পর্ক নিয়ে দুই গ্রামের বাসিন্দাদের মধ্যে দফায় দফায় পাল্টাপাল্টি হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে দুই পক্ষের অন্তত ৪ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে তাৎক্ষণিক আহতদের নাম জানা যায়নি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ১১ রাউন্ড গুলি ছুড়ে পুলিশ।

গতকাল সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যার দিকে সেনবাগ উপজেলার কেশারপাড় ইউনিয়নের কেশারপাড় বাজারস্থ চৌরাস্তা ও কানকির হাট বাজারে বীরকোট গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ১১ রাউন্ড গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বর্তমানে ওই এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, কেশারপাড় গ্রামের ছেলে রাকিবের সাথে (১৮) একই ইউনিয়নের বীরকোট গ্রামের কিশোরীর জেসমিন আক্তার (ছদ্মনাম) (১৫) সঙ্গে প্রেম আদান প্রদানকে কেন্দ্র করে দুই পরিবারের মাঝে বিরোধ দেখা দেয়। এতে মেয়ে পক্ষের লোকজন প্রথমে প্রেমিক রাকিবকে চড় থাপ্পড় দেয়।

পরবর্তীতে ছেলে পক্ষের লোকজন মেয়ের ভাইকে মারধর করে। পরে এটাকে নিয়ে দুই গ্রামের ইজম সৃষ্টি করে দুই গ্রামবাসী সোমবার সন্ধ্যায় দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। অপরদিকে, এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসী বাজারে দাঙ্গা-হাঙ্গামা করার প্রতিবাদে কেশারপাড় বাজারের সাধারণ ব্যবসায়ীরা মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে প্রতিবাদ মিছিল করে।

সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী বলেন, প্রেম আদান প্রদানকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। তবে পুলিশ তাৎক্ষণিক ১১ রাউন্ড গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় পুলিশের অভিযান অব্যাহত থাকায় দুই গ্রামের পুরুষ সদস্যরা গাঢাকা দিয়েছে।