ওষুধের দোকান থেকে শাহনাজ পারভীন (৩৪) নামে এক গৃহবধূর খণ্ডিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে একটি ওষুধের দোকান থেকে শাহনাজ পারভীন (৩৪) নামে এক গৃহবধূর খণ্ডিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে জগন্নাথপুর পৌর পয়েন্টের ব্যারিস্টার মির্জা আব্দুল মতিন মার্কেটের অভি মেডিক্যাল হল থেকে তার খণ্ডিত লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে পরিবারের সদস্যরা লাশটি শনাক্ত করেন।

শাহনাজ পারভীন উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের নারিকেল তলা গ্রামের সৌদি প্রবাসী ছুরুক মিয়ার স্ত্রী। তিনি দীর্ঘদিন ধরে জগন্নাথপুর পৌর এলাকায় দুই মেয়ে ও এক ছেলেকে নিয়ে স্বামীর নিজস্ব বাসায় বসবাস করে আসছেন।

ভার্চুয়াল স্বাস্থ্য পরীক্ষার নামে তরুণীদের ভিডিও ধারণ করতো ফাহাদ: র‌্যাব ভার্চুয়াল স্বাস্থ্য পরীক্ষার নামে তরুণীদের ভিডিও ধারণ করতো ফাহাদ: র‌্যাব
শাহনাজের ভাই হেলাল মিয়া জানান, গত বুধবার বিকেলে ওষুধ কেনার কথা বলে ঘর থেকে বের হয়ে তার বোন নিখোঁজ হন। রাতে অনেক খোঁজাখুঁজি করে তাকে না পেয়ে ওই ফার্মেসি মালিকের বাসায় খোঁজ নিতে যায়। কিন্তু ওই বাসায় কেউ ছিল না। পরে বৃহস্পতিবার দুপুরে জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার উপস্থিতিতে অভি মেডিক্যাল হলের তালা ভেঙে ভেতরে বিছানার চাদর দিয়ে মোড়ানো খণ্ডিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

ঘটনার পর থেকে ফার্মেসির মালিক জিতেশ গোপ পলাতক রয়েছেন। জিতেশ কিশোরগঞ্জের ইটনা উপজেলার সইলা গ্রামের যাদব গোপের ছেলে। তিনি জগন্নাথপুর বাজারে ওষুধের দোকানে চাকরি করতেন। এক বছর আগে অভি মেডিক্যাল হল নামে একটি ওষুধের দোকান দেন তিনি।

জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, এক নারীর ছয় টুকরো লাশ উদ্ধার করা হয়েছে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ সুনামগঞ্জ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ফার্মেসি মালিককে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।