বিপিএল এ ১’ রানের জয়ে চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা


বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) অষ্টম আসরের ফাইনালে ফরচুন বরিশালকে ১ রানে হারিয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। হাই ভোল্টেজ ফাইনাল জিতে প্রথম দল হিসেবে তৃতীয়বারের মত বিপিএলের শিরোপা জিতল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

গেইল সৈকত
দ্বিতীয় উইকেটে ৭৪ রানের জুটি গড়েন সৈকত ও গেইল।
মিরপুরে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত সূচনা পেলেও নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৫১ রান জড়ো করে কুমিল্লা। ২১ বলে অর্ধশতক হাঁকানো নারাইন ২৩ বলে ৫টি করে চার-ছক্কায় ৫৭ রান করে বিদায় নিলে খেই হারায় কুমিল্লা।

তবে মঈন আলীর ৩২ বলে ৩৮ ও আবু হায়দার রনির ২৭ বলে ১৯ রানের ইনিংস দুইবারের চ্যাম্পিয়নদের এনে দেয় লড়াকু পুঁজি। বরিশালের পক্ষে শফিকুল ইসলাম ও মুজিব উর রহমান দুটি করে উইকেট শিকার করেন।

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে বরিশাল শুরুতেই হারিয়ে ফেলে ফর্মে থাকা মুনিম শাহরিয়ারকে (৭ বলে ০)। তবে মুনিমের অভাব পূরণ করেন একাদশে ফেরা সৈকত আলী। ৩৪ বলে ১১টি চার ও ১টি ছক্কা হাঁকিয়ে ৫৮ রান করে দলকে সুবিধাজনক অবস্থানে নিয়ে যান।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) অষ্টম আসরের ফাইনালে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে – উইকেটে হারিয়েছে ফরচুন বরিশাল। ভাই ভোল্টেজ ফাইনাল জিতে বিপিএলের ইতিহাসে প্রথম শিরোপা জিতেছে বরিশালের কোনো দল।
৪ ওভার বল করে মাত্র ১৫ রান খরচ করেন নারাইন।
সৈকতের মত মারকুটে ব্যাটিং না দেখালেও চওড়া ছিল ক্রিস গেইলের ব্যাট। সাজঘরে ফেরার আগে ১টি চার ও ২টি ছক্কায় ৩১ বলে ৩৩ রান করেন তিনি। সাকিব আল হাসান (৭ বলে ৭) আউট হলে শেষদিকে দায়িত্ব বর্তায় নুরুল হাসান সোহান (১৩ বলে ১৪) ও নাজমুল হোসেন শান্তর (১৫ বলে ১২) কাঁধে।

তবে সোহান-শান্ত দুজনই সাজঘরে ফেরেন দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছে। ১ রান করে আউট হন ডোয়াইন ব্রাভো। এতে ধীরে ধীরে ম্যাচ কঠিন হয়ে যায় বরিশালের জন্য। স্লগ ওভারে সুনীল নারাইনের বোলিং লড়াইয়ে ফেরায় কুমিল্লাকে।

শেষ ওভারে জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ১০ রান। শহিদুল ইসলামের করা উত্তেজনাপূর্ণ সেই ওভারে বরিশাল জড়ো করতে পেরেছে ৮ রান। নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৫০ রান দাঁড়ায় সাকিব আল হাসানের দলের সংগ্রহ। এতে ১ রানের জয়ে শিরোপা জেতে ইমরুল কায়েসের নেতৃত্বাধীন কুমিল্লা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
টস : কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স : ১৫১/৯ (২০ ওভার)
নারাইন ৫৭, মঈন ৩৮, রনি ১৯, ইমরুল ১২
মুজিব ২৭/২, শফিকুল ৩১/২, ব্রাভো ২৬/১, সাকিব ৩০/১

জয়ের জন্য ফরচুন বরিশাল : ১৫০/৮ (২০ ওভার)
মুনিম ৫৮, গেইল ৩৩, সোহান ১৪, শান্ত ১২
নারাইন ১৫/২ তানভীর ২৫/২