নিজের চামড়া বাঁচাতে ভারতে আশ্রয় নিয়েছেন তসলিমা : ওয়াইসি । এর আগে তসলিমা হিজাব নিয়ে বাজে মন্তব্য করেন।


সর্বভারতীয় মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলেমিনের (এআইএমআইএম) প্রধান আসদুদ্দিন ওয়াইসি বলেছেন, নিজের চামড়া বাঁচাতে ভারতে আশ্রয় নিয়েছেন বাংলাদেশি লেখিকা তসলিমা নাসরিন। বৃহস্পতিবার ভারতীয় সম্প্রচারমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে টিভিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেছেন।

এর আগে ইন্ডিয়া টুডে টিভির সাথে একান্ত সাক্ষাৎকারে তসলিমা নাসরিন বলেছিলেন, হিজাব, বোরকা বা নিকাব নিপীড়নের প্রতীক।

তসলিমার এই মন্তব্য সম্পর্কে জানতে চাইলে আসদুদ্দিন ওয়াইসি বলেন, ‘আমি এখানে বসে এমন একজনকে জবাব দেব না যিনি ঘৃণার প্রতীক হয়ে উঠেছেন। আমি এখানে বসে এমন একজনের কথার উত্তর দেব না যাকে আশ্রয় দেওয়া হয়েছিল এবং যিনি ভারতে শরণার্থী হয়ে পড়ে আছেন। কারণ তিনি নিজের দেশে তার চামড়া বাঁচাতে পারেননি, তাই আমি এখানে বসে সেই ব্যক্তি সম্পর্কে কথা বলব না।’

তসলিমা নাসরিনের মন্তব্যের সমালোচনা করে ওয়াইসি বলেন, ‘উদারপন্থীরা শুধুমাত্র তাদের পছন্দের স্বাধীনতাতেই খুশি থাকে… উদারপন্থীরা চায় প্রত্যেক মুসলমান তাদের মতো আচরণ করুক। ডানপন্থি মৌলবাদীরা চায়, সংবিধানে আমাদের নিশ্চিয়তা দেওয়া ধর্মীয় পরিচয় যেন আমরা ত্যাগ করি।’

তিনি বলেন, ‘ভারত একটি সেক্যুলার রাষ্ট্র এবং এখানে কেউ আমাকে আমার ধর্মত্যাগের কথা বলতে পারবে না। ভারত বহু সংস্কৃতি, নানা ধর্মের দেশ…তবে কেউ আমাকে কীভাবে আচরণ করতে হবে সে কথা বলতে পারবে না, আমার ধর্মত্যাগের কথা বলতে পারবে না, আমার সংস্কৃতি ত্যাগ করার কথা বলতে পারবে না।’