‘হাসান’নামের ওই ড্রোনটিকে’ ধাওয়া করে লেবাননের আকাশে ইসরাইলি যুদ্ধবিমান


লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন-হিজবুল্লাহর পাঠানো একটি ড্রোন শুক্রবার ভোরে ইসরাইলের আকাশসীমায় ঢুকে নিরাপদে ফিরে আসে। ‘হাসান’নামের ওই ড্রোনটি টানা ৪০ মিনিট ইসরাইলে অবস্থান করে নজরদারি চালিয়েছিল।

ইসরাইলের সামরিক বাহিনী ড্রোনটি লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়লেও তা লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। এরপর জঙ্গিবিমান দিয়ে ড্রোনটি তাড়া করে ইসরাইল।

তবে, তাদের সব প্রচেষ্টাই ব্যর্থ করে দিয়ে লেবাননে নিরাপদে ফিরে আসে হিজবুল্লাহর সেই ড্রোন।এ সময় ভূপাতিত করতে ব্যর্থ হয়ে ড্রোনটিকে ধাওয়া করতে করতে লেবাননের রাজধানী বৈরুত পর্যন্ত চলে আসে ইসরাইলের দুটি যুদ্ধবিমান।আন্তর্জাতিক আকাশসীমা লঙ্ঘন করা নিয়ে গণমাধ্যমের কাছে কোনো মন্তব্য করেনি ইসরাইলের সেনাবাহিনী।

উল্লেখ্য, শুক্রবার ভোরে ইসরাইলের আকাশে সফলভাবে দীর্ঘ চল্লিশ মিনিট ধরে একটি গোয়েন্দা ড্রোন উড়িয়েছে লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহ।

সংগঠনটি জানিয়েছে, অক্ষত অবস্থায় মিশন শেষ করে লেবাননে ফিরে আসে ড্রোনটি।

হিজবুল্লাহ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, শুক্রবার প্রতিরোধ আন্দোলন ‘হাসান’ নামে একটি ড্রোন অধিকৃত ফিলিস্তিনের ভূখণ্ডে পাঠায় এবং টার্গেটকৃত এলাকায় ৪০ মিনিট ধরে সেটি গোয়েন্দা মিশন পরিচালনা করে।

এ সময় ইসরাইলের সেনাবাহিনী নানাভাবে ড্রোনটি ভূপাতিত করার চেষ্টা করা হলেও তা ব্যর্থ হয়।

এর দুদিন আগে হিজবুল্লাহ মহাসচিব সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ বলেছিলেন, সংগঠনের যোদ্ধারা নিজেরাই ড্রোন এবং ক্ষেপণাস্ত্র বানাচ্ছে।