রাশিয়ার ৪৫০ সেনা নিহত, দাবি যুক্তরাজ্যের, পরাশক্তীগুলো যুদ্ধে জড়িয়ে যাওয়ার শঙ্কা


ইউক্রেনে দ্বিতীয় দিনের মতো হামলা চালিয়ে যাচ্ছে রাশিয়া। এ ঘটনায় ইউক্রেনের পক্ষ থেকে হতাহতের কথা জানানো হলেও রাশিয়া স্পষ্ট কোনো তথ্য এখনো প্রকাশ করেনি। তবে যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেন ওয়ালেস দাবি করেছেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত রাশিয়ার ৪৫০ সেনা নিহত হয়েছেন। বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

যুক্তরাজ্য সরকারের দৃষ্টিভঙ্গির কথা জানিয়ে বেন ওয়ালেস বলেন, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনজুড়েই হামলা চালাতে চায়।

এর আগে, ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি দাবি করেন, রুশ বাহিনীর হামলায় কমপক্ষে ১৩৭ জন ইউক্রেনীয় সৈন্য নিহত ও ৩১৬ জন আহত হয়েছেন।

এদিকে ইউক্রেনে চলমান হামলা অব্যাহত রেখেছে রাশিয়া। ধারণা করা হচ্ছে কিয়েভ সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত হামলা চালিয়ে যাবে দেশটি।

জানা গেছে, এরই মধ্যে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে ঢুকে পড়েছে রাশিয়ার সৈন্যরা। ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক টুইটে বলেছে, ‘শত্রুরা’ ওবোলোনে পৌঁছে গেছে। এটি কিয়েভ শহরের কেন্দ্রস্থল, পার্লামেন্ট থেকে মাত্র নয় কিলোমিটার দূরে।

মলোটভ ককটেল বা পেট্রল বোমা তৈরি করে লড়াইয়ে অংশ নিতে স্থানীয়দের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ইউক্রেনীয় কর্তৃপক্ষ। অন্যদের নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যাওয়ারও পরামর্শ দিয়েছে তারা।

বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) ইউক্রেনের সামরিক অবকাঠামো ও সীমান্তরক্ষী বাহিনীর ওপর হামলা শুরু করে রাশিয়া। এরপর কিয়েভের সামরিক স্থাপনাসহ বিভিন্ন জায়গায় তিন দিক থেকে হামলা চালায় মস্কো।