শিক্ষকদের সাথে টিকাকেন্দ্রে গিয়ে হিরা আক্তার নামে এক ছাত্রী নিখোঁজ

সাতক্ষীরার শ্যামনগরের মুন্সিগঞ্জ থেকে মাদ্রাসা থেকে শিক্ষকদের সাথে করোনা টিকা নিতে গিয়ে আর বাড়ি ফেরেনি হিরা আক্তার (১৫) নামে এক ছাত্রী। এই ঘটনায় শ্যামনগর থানায় সাধারণ ডায়রি করেছে নিখোঁজ কিশোরীর পরিবার। বুধবার (২৩ফেব্রুয়ারি) বিকেলে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার মুন্সিগঞ্জে সুশিলন কার্যালয় থেকে নিখোঁজ হয় ওই কিশোরী।

নিঁখোজ কিশোরী হিরা গাবুরা ইউনিয়নের ডুমুরিয়া গ্রামের হযরত আলী মোড়লের মেয়ে। সে গাবুরা দারুস সুন্নাহ দাখিল মাদ্রাসার নবম শ্রেণির ছাত্রী।

হিরার মা আবেদা খাতুন জানান, ‌‌‌‌বুধবার মাদ্রাসার শিক্ষকদের সাথে নদীর ওপারে মুন্সিগঞ্জে সুশীলন কার্যালয়ে টিকা দিতে যায় হিরা। এরপর সেখান থেকে সে বাড়িতে ফেরেনি। মাদ্রাসার শিক্ষকরাও এবিষয়ে কিছু বলতে পারছেন না। আত্মীয়স্বজনের বাড়িতে ও আশপাশের সব এলাকায় খোঁজ নেয়া হয়েছে। তার কোনো সন্ধান না পেয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছি।

গাবুরা দারুস সুন্নাহ দাখিল মাদ্রাসা সুপার মাওলানা লিয়াকত আলী বলেন, করোনার দ্বিতীয় ডোজ টিকা দেয়ার জন্য বুধবার মাদ্রাসার ২৭৫ ছাত্র ছাত্রীকে টিকা দিতে কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে আটজন শিক্ষকও ছিলেন।টিকাকেন্দ্রে দীর্ঘ লাইন থেকে বিশৃঙ্খল পরিবেশ তৈরি হয়। সেখান থেকে হঠাৎ নিখোঁজ হয় হিরা। অমরা অনেক খুঁজে তাকে না পেয়ে ফিরে আসি।

শ্যামনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী ওয়াহিদ মোর্শেদ বলেন, এই ঘটনায় নিখোঁজ ছাত্রীর মা একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। আমরা তার অনুসন্ধান শুরু করেছি।