রোমান সাম্রাজ্যের পতনের শুরু হলো?

ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলার ১১তম দিন পার হচ্ছে। রাশিয়ার ওপর আরোপিত হয়েছে পশ্চিমের ব্যাপক নিষেধাজ্ঞা। তোপের মুখে রাশিয়ার পুতিনঘনিষ্ঠ ধনকুবেররা। এ পরিস্থিতিতে রুশ ধনকুবের ও রাজনীতিবিদ রোমান আব্রামোভিচ লন্ডনে তাঁর বিপুল পরিমাণ সম্পদ ব্যাপক মূল্য হ্রাসে বিক্রি করে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছেন।

রোমান আব্রামোভিচ তিন বিলিয়ন পাউন্ডে চেলসি ফুটবল ক্লাব আর ২০০ মিলিয়ন পাউন্ডে লন্ডনের সম্পত্তি বিক্রির তোড়জোর শুরু করেছেন।একজন ব্রিটিশ এমপি দাবি করেছেন, রুশ এ বিলিয়নিয়ার তাঁর সম্পদ জব্দ করা ঠেকাতেই তাড়াহুড়ো করছেন।

লেবার পার্টির এমপি ক্রিস ব্রায়ান্ট আইনি পদক্ষেপ এড়াতে সংসদীয় বিশেষাধিকার ব্যবহার করে এ অভিযোগ করেছেন। ক্রিস ব্রায়ান্ট বলেন, তাঁর আশঙ্কা সরকার এ ব্যাপারে দ্রুত কিছু না করলে দেরি হয়ে যাবে।

যুক্তরাজ্য এবং বিশ্বজুড়ে রোমানের সম্পদের পরিমাণ সাড়ে ১২ বিলিয়ন ডলার। ফোর্বস ম্যাগাজিনের তথ্যানুসারে, তাঁর কেনসিংটন ম্যানসনের মূল্য ২২ মিলিয়ন পাউন্ড। তাঁর ১.২ বিলিয়ন পাউন্ডের বেশি মূল্যের প্রমোদতরি, ব্যক্তিগত বিমান, হেলিকপ্টার এবং অত্যাধুনিক গাড়ি আছে।

চেলসি ফুটবল ক্লাব যুক্তরাজ্যে তাঁর সম্পদের অন্যতম। রবিবার লেবার পার্টির নেতা স্যার কেইর স্টারমার প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের ওপর চাপ দিয়ে জানতে চেয়েছেন, কেন রোমানের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হচ্ছে না।

সেই সঙ্গে তিনি অভিযোগ করেছেন, রুশ সরকারের সঙ্গে রোমানের সম্পৃক্ততা রয়েছে এবং তিনি দুর্নীতির সঙ্গেও যুক্ত।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেছেন, কোনো ব্যক্তির ব্যাপারে মন্তব্য করা তাঁর পক্ষে ‘উপযুক্ত’ নয়।

ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী এর আগে বলেছেন, তাঁর কাছে রুশ প্রভাবশালী ধনকুবেদের একটি তালিকা রয়েছে, যাদের টার্গেট করা হচ্ছে। তবে তাদের সবার নাম তিনি উল্লেখ করেননি।

সামান্য এক কপর্দকহীন অনাথ থেকে চেষ্টা আর যোগাযোগের সুবাদে বিশ্বের অন্যতম ধনী ব্যক্তিতে পরিণত হন আব্রামোভিচ। তিনি প্রথম অর্থের দেখা পান গর্বাচেভের পেরেস্ত্রোইকার আমলে। সূত্র: ডেইলি মেইল।