গরিব মানুষের কথা চিন্তা করে ১৮০ টাকায় তেল কিনে ১৫০ টাকায় বিক্রি করছেন তিনি

নিত্যপণ্যের দাম যখন ঊর্ধ্বমুখী তখন অনেকেই বেশি পণ্য মজুত করে বাড়তি মুনাফা আয়ে ব্যস্ত। তবে এ সময়ে ব্যতিক্রমী ভূমিকা পালন করছেন মিজানুর রহমান নামে এক ব্যক্তি। ১৮০ টাকা লিটার দরে সয়াবিন তেল কিনে বিক্রি করছেন ১৫০ টাকায়। লিটারে নিজের পকেট থেকে ৩০ টাকা ভর্তুকি দিচ্ছেন।

শনিবার (১২ মার্চ) দুপুরে নাভারণ-সাতক্ষীরা মোড়ে ১০০ লিটার তেল গরিব মানুষের মাঝে বিক্রির কার্যক্রম শুরু করেন। এর মাধ্যমে তিনি অসাধু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদও জানান। এদিকে, বাজারের চেয়ে ৩০ টাকা কমে তেল পেয়ে এমন কর্মকাণ্ডকে স্বাগত জানিয়ে ক্রেতারা।

মিজানুর রহমান বলেন, ‘যারা অবৈধভাবে তেল মজুত করে নিত্যপণ্যের বাজারে কৃত্রিমতা সৃষ্টি করেছেন, তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জোর দাবি জানাচ্ছি। বাজারে তেলের চাহিদা মেটাতে ডিলার বা পাইকারদের এখনই মানবিকতার পরিচয় দেওয়ার সময় এসেছে।’ গরিব, অসহায় ও দুস্থ মানুষের মাঝে সরকার নির্ধারিত দামে তেল বিক্রির অনুরোধ জানান।

যতদিন তেলের দাম নিয়ে গরিবের নাভিশ্বাস থাকবে, ততদিন পর্যন্ত প্রতিদিন বিভিন্ন গ্রামগঞ্জে ও বাজারে এভাবে এ দামে তেল বিক্রি করা হবে। এই কার্যক্রমে অংশ নেওয়ার জন্য দেশের সব দানশীলের প্রতিও আহ্বান জানান মিজানুর রহমান।