লালমনিরহাটে নদীতে পাওয়া গেলো বস্তাবন্দি জীবিত জাহিদকে

লালমনিরহাটে নদী থেকে বস্তা বন্দি হাত-পায়ে শিকল বাঁধা অবস্থায় জাহিদ হোসেন (২২) নামের এক যুবককে উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১৭ মার্চ) সকালে সদর উপজেলার খুনিয়াগাছ এলাকার ত্রিমোহনী নদীর ব্রীজের নিচ থেকে তাকে জীবিত উদ্ধার করে পুলিশ। জাহিদ হোসেন সদর উপজেলার রাজপুর ইউনিয়নের হুদুরবাজার এলাকার মৃত আবু বক্করের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী সরল খাঁ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক কার্তিক কুমার আচার্য জানান, সকালে ব্রীজের উপর হাটতে গিয়ে নদীতে একটি বস্তায় কিছু পড়ে রয়েছে বলে বুজতে পারেন। পরে এলাকার লোকজনকে ডেকে পুলিশের সহায়তায় বস্তা থেকে জাহিদ হোসেনকে হাত-পায়ে শিকল বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পরে জাহিদ জীবিত আছে বুঝতে পেরে থানা পুলিশ সাথে সাথে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করান। বর্তমানে জাহিদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

প্রধান শিক্ষক কার্তিক কুমার আচার্য আরও বলেন, বস্তা থেকে মাথা নেড়া, হাত পায়ে শিকল বাঁধা এবং অজ্ঞান অবস্থায় তাকে উদ্ধায় করা হয়। লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের আরএমও কামরুল হাসান প্রিন্স বলেন,ছেলেটির শরীরে সম্ভবত কোন চেতনা নাশক ওষুধ প্রয়োগ করে অজ্ঞান করা হয়েছিল। বর্তমানে ছেলেটি সুস্থ আছে।

লালমনিরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহা আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, যুবকটিকে জীবিত উদ্ধারের হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা হয়েছে। তবে তাকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে অজ্ঞান করে বস্তায় ভড়ে নদীতে ফেলে দেয়া হয়েছে কি না এবং অন্য কোন ঘটনা আছে কি না পুলিশ তদন্ত করছে।