গাড়িতেও জ্বালানি হিসেবে সয়াবিন তেল ব্যবহার করা হচ্ছে: বাণিজ্য সচিব

গাড়িতেও জ্বালানি হিসেবে সয়াবিন তেল ব্যবহার করা হচ্ছে: বাণিজ্য সচিব

গাড়িতেও এখন জ্বালানি হিসেবে সয়াবিন তেল খাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষ। শনিবার (২১ মে) দুপুরে ফরিদপুরের জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বিশ্বে বায়োফুয়েলের চাহিদা তৈরি হওয়ায় ব্রাজিল এখন গাড়ির জ্বালানি হিসেবেও সয়াবিন তেল ব্যবহার করছে। এজন্য তারা সয়াবিন রপ্তানি কমিয়ে দিয়েছে। আবার করোনার পর সব পোর্ট যখন খুলে যায় তখন তারা রেন্টও বাড়িয়ে দিয়েছে। বিশ্বের সবকটি বড় কন্টেইনার কোম্পানি ভাড়া অনেক বাড়িয়ে দিয়েছে।

বাণিজ্য সচিব আরও বলেন, নিত্যপণ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় আমাদের অনেকেরই কষ্ট হচ্ছে। এজন্য সরকার টিসিবির মাধ্যমে এক কোটি পরিবারকে ভর্তুকি মূল্যে তেল, চিনি ও ডাল দিয়েছে রোজার সময়। আগামী জুনের মধ্যে পাঁচ কোটি মানুষকে টিসিবি পণ্যের আওতায় আনার চেষ্টা চলছে। এতদিন বাজার থেকে কিনে ভর্তুকি মূল্যে সরকার জনগণের মাঝে টিসিবির পণ্য বিক্রি করতো। এখন সরকার সরাসরি বিদেশ থেকে আমদানি করে টিসিবির মাধ্যমে ওই পণ্য বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এতে আমাদের ভর্তুকির পরিমাণ কমে যাবে।

দেশে সম্প্রতি তেল মজুতের বিষয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের এ সিনিয়র সচিব বলেন, কিছু ব্যবসায়ী খারাপ, কিন্তু সব ব্যবসায়ী না। এবার যেভাবে বোতল কেটে তেল বিক্রি করা দেখলাম, এটি তো মিল মালিক বা বড় ব্যবসায়ীরা করেনি। আশির দশকে দেশের মানুষ রান্নায় সরিষার তেল ব্যবহার করতেন কিন্তু এখন সবাই সয়াবিন তেল ব্যবহারে অভ্যস্ত হয়ে গেছে। সরকার বিকল্প ব্যবহারের গুরুত্ব তুলে ধরতে চিন্তাভাবনা করছে। এজন্য সরিষা, বাদাম, তেল, তিশি, রাইস ব্রান্ডের তেলের ব্যবহার বাড়াতে হবে।

এদিকে ফরিদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) দীপক কুমার রায়ের সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অর্থ ও প্রশাসন) জামাল পাশা, জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কাজী সাইফুদ্দিন, ফরিদপুর চেম্বারের সভাপতি মো. নজরুল ইসলাম, ফরিদপুর ডেইরি ফারমার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মীর কাশেম আলী, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সোহেল শেখ, ফরিদপুর সরকারি রাজেন্দ্র কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক অসীম কুমার সাহা, সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর কাজী গোলাম মোস্তফা, উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক, সরকারি ইয়াছিন কলেজের অধ্যক্ষ শীলা রানী, ফরিদপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি কবিরুল ইসলাম সিদ্দিকী, অধ্যাপক রেজভি জামান, সাংবাদিক প্রবীর কান্তি পান্না বালাসহ প্রমুখ।