আগামী ৩ দিন ভারী বর্ষণ হতে পারে

দেশের প্রায় সকল বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। সেই সাথে কোথাও কোথাও ভারী বর্ষণ হতে পারে বলে জানানো হয়েছে। শনিবার (২৮ মে) সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আরও জানানো হয়, আগামী দুদিন বজ্রসহ বৃষ্টি অব্যাহত থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া বর্ধিত ৫ দিনের আবহাওয়ার অবস্থা সম্পর্কে বলা হয়েছে, দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু কক্সবাজারের টেকনাফ উপকূল পর্যন্ত অগ্রসর হতে পারে।

শনিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় সর্বোচ্চ ৩২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এ সময় পটুয়াখালীর খেপুপাড়ায় ২২, কক্সবাজারের কুতুবদিয়া ও পটুয়াখালীতে ১৬, নেত্রকোনায় ১৪, নওগাঁর বদলগাছীতে ১২, কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ১১ এবং যশোরে মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া গোপালগঞ্জ, কিশোরগঞ্জের নিকলি, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম, রাঙ্গামাটি, কুমিল্লা, কক্সবাজার, সিলেট, রাজশাহী, পাবনার ঈশ্বরদী, নীলফামারীর ডিমলা, বাগেরহাটের মোংলা এবং ভোলাতেও বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

রবিবার (২৯ মে) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরসমূহের জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, দিনাজপুর, রাজশাহী, পাবনা, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, কুষ্টিয়া, যশোর, খুলনা, কুমিল্লা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে পশ্চিম অথবা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ বৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরসমূহকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

পূর্বাভাসে আরও বলা হয়, লঘুচাপের বাড়তি অংশ বিহার থেকে পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চল হয়ে উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিরাজমান রয়েছে। ঢাকায় আজ রবিবার সূর্যাস্ত সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিটে এবং আগামীকাল সোমবার (৩০ মে) সূর্যোদয় ভোর ৫টা ১২ মিনিটে।