ভিডিওকলে বন্ধুকে আগুন দেখাচ্ছিলেন আফজাল, লাশ মিলল মর্গে

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের বিএম কন্টেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় লাশের সারি দীর্ঘ হচ্ছে। মৃত ব্যক্তিদের স্বজনদের আহাজারিতে আকাশ পাতাল ভারি হয়ে উঠছে। এ পর্যন্ত প্রায় ৪৯ জনের মৃত্যু নিশ্চিত করা গেছে। তাদেরই একজন আফজাল হোসেন। প্রায় দুই বছর ধরে কন্টেইনার ওয়েল্ডিংয়ের কাজ করছেন তিনি। তাঁর বাড়ি সীতাকুণ্ড উপজেলায়। প্রতিদিন কাজ শেষে বাড়িতে চলে যান। কিন্তু শনিবার আগুন দেখতে থেকে গিয়েছিলেন ডিপোতেই।

বন্ধুকে আগুনের ভয়াবহতা দেখাতে দিয়েছেন ভিডিও কল। হঠাৎ বিস্ফোরণে প্রাণ হারান তিনি। আফজালের মৃত্যুর সেই সময়কার দৃশ্য বর্ণনা করছিলেন বন্ধু আকাশ। তিনি বলেন, আনুমানিক ১০টার দিকে আমাকে ইমোতে ফোন দেয়। বলে, দেখ আগুন জ্বলছে। প্রায় দশ মিনিট ধরে কথা হয় তার সঙ্গে। হঠাৎ বিস্ফোরণের শব্দ শুনা যায়। এরপরই আর তার শব্দ পাওয়া যায়নি। বেশ কয়েকবার ফোন দিয়েও কোনো সাড়া মিলেনি। রোববার সকাল থেকে খোঁজাখুঁজির কিছুক্ষণ আগে তার পরনের জামা দেখে শনাক্ত করা হয়।

আফজালের মেজ ভাই সজল বলেন, শনিবার থেকে একাধিকবার ফোন করেও কোনো সাড়া পাচ্ছিলাম না। নগরের সব জায়গায় খোঁজ নিয়েছি। পরে মর্গে এসে মরদেহের সন্ধান মিলেছে। তিনি বলেন, আমার ভাইকে এভাবে হারবো কখনো ভাবিনি। তার চেহারা চেনা যাচ্ছে না। পরনের জামা দেখে চিহ্নিত করা হয়েছে।