ভারত সফর বাতিল করল বাংলাদেশের স্পিকার, ভারতীয় গণমাধ্যম যা লিখলো

বাংলাদেশ

শেষ মুহূর্তে ভারত সফর বাতিল করল বাংলাদেশের সংসদীয় প্রতিনিধি দল। ভারতের রাজধানী দিল্লিতে চলা গোষ্ঠী সং'ঘ’র্ষের আবহে এই পদ'ক্ষেপ উসকে দিয়েছে তুমুল জল্পনা।

মুজিবর্ষের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানাতে সোমবার (২ মা’র্চ) বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরিন শারমিন চৌধুরির নেতৃত্বে বাংলাদেশের প্রতিনিধি দলের দিল্লি সফরের দিনক্ষণ চূড়ান্ত ছিল।

কিন্তু রোববার (১ মা’র্চ) রাতে আচমকায় এই সফর বাতিল করার সি'দ্ধান্ত নেই ঢাকা। এর কারণ হিসেবে জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরিন শারমিন চৌধুরি জানিয়েছেন, ‘মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানের বিশেষ দায়িত্বের কারণে এখন তিনি অ’ত্যন্ত ব্যস্ত, তাই ভারত সফরে যেতে পারছেন না। তবে কূটনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, দিল্লি হিং’সার কারণেই বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের স্পিকারের এই সফর বাতিল হয়েছে।’

উল্লেখ্য, আগামী ১৭ মা’র্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী’। সেই উপলক্ষে বর্ষব্যাপী অনুষ্ঠানের সূচনা হবে ওইদিন। তাই নরেন্দ্র মোদির পাশাপাশি একাধিক বিশিষ্ট মানুষকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

এই বি'ষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে আমন্ত্রণ জানাতে জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরিন শারমিন চৌধুরির নেতৃত্বে বাংলাদেশের ১৮ সদস্যের প্রতিনিধি দলের ২ মা’র্চ দিল্লি সফরের কথা ছিল। আগামী ৬ মা’র্চ পর্যন্ত তারা দিল্লিতে থাকবে বলে প্রথমে স্থির হয়েছিল।

এদিকে, গত বৃহস্পতিবার হেফাজতে ইস’লামির প্রধান আল্লামা শফি একটি বিবৃতি প্রকাশ করে দাবি জানিয়েছিলেন, ‘অবিলম্বে নরেন্দ্র মোদির নিমন্ত্রণ বাতিল করতে হবে। যার হাতে গণহ’ত্যা’র দাগ লেগে আছে। সেই ধরনের মানুষের উপস্থিতি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এই দেশ কোনওদিন মেনে নেবে না।’

তবে, বিভিন্ন কট্টর ইস’লামিক সংগঠনের তরফে নরেন্দ্র মোদির নিমন্ত্রণ বাতিলের দাবি করা হলেও বি'ষয়টিকে গু'রুত্ব দিচ্ছে না শাসকদল আওয়ামি লিগ। এপ্রসঙ্গে তাদের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, বাংলাদেশের মুক্তি’যু’'দ্ধে ভারতের ভূমিকা কোনওদিন অস্বীকার করা যাব'ে না।তথ্য সূত্রঃ সংবাদ প্রতিদিন

Facebook Comments