রাতে একটি কবরস্থান থেকে ভেসে আসছিল নবজাতকের কান্না

সুনামগঞ্জের একটি কবরস্থান থেকে রাত সাড়ে ১০টার দিকে কান্নার শব্দ পায় এলাকাবাসী। পরে এলাকাবাসী করস্থানে প্রবেশ করে নবজাতককে দেখতে পেয়ে উদ্ধার করে ।নবজাতকটিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে সুনামগঞ্জ শহরতলির ইব্রাহিমপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

কবস্থানের পাশের এক বাসিন্দা বলেন, রাতে হঠাৎ করে নবজাতকের কান্না কানে আসছিল। এগিয়ে গিয়ে দেখতে পাই, একটি নবজাতককে কবরস্থানের মধ্যে ফেলে রাখা হয়েছে। নবজাতকটি উচ্চস্বরে কাঁদছিল। কান্নার শব্দ শুনে গ্রামের আরও লোকজন জড়ো হয়। এরপর সকলে মিলে নবজাতকটিকে সেখান থেকে উদ্ধার করে পুলিশে খবর দেয়।

বৃহস্পতিবার ইব্রাহিমপুর কবরস্থানে শিশুর কান্না শুনে গ্রামের লোকজন বিষয়টি ইউপি সদস্য গিয়াস উদ্দিনকে জানান। পরে গিয়াস উদ্দিন সদর থানায় জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নবজাতক কন্যাশিশুকে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতাল ভর্তি করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সদর থানার ডিউটি অফিসার এস আই সাব্বির বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে কবরস্থান থেকে শিশুর কান্নার আওয়াজ শুনে প্রতিবেশীরা স্থানীয় ইউপি সদস্য গিয়াস উদ্দিনকে অবহিত করেন। পরে সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার এস আই সাব্বির আহমদ ও ইউপি সদস্য গিয়াস উদ্দিন নবজাতকে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে আসেন। শিশুটি বর্তমানে হাসপাতালে সুস্থ রয়েছে। তিনি আরও বলেন, শুক্রবার সমাজ সেবা অফিসের প্রবেশন অফিসারের কাছে শিশুটিকে হস্তান্তর করা হবে।